ওলকপি < উৎপাদন পদ্ধতি

ওলকপি সংগ্রহ ও করণীয়

ফসল তোলা ও ফলন চারা রোপণের ৪০-৬০ দিন পর থেকেই জাত ভেদে ওলকপি তোলার উপযুক্ত হয়ে যায়। কচি থাকতেই তোলা উচিত। না হলে আঁশ হয়ে শক্ত হয়ে যায় ও স্বদ নষ্ট হয়ে যায়। জাত ভেদে প্রতি শতকে ১০০-১২০ কেজি এবং হেক্টরে ২৫-৩০ টন ফলন পাওয়া যায়। তবে ইদানীং হাইব্রিড জাতসমূহ আসাতে ফলন ৫০-৬০ টন পাওয়া [...]

ওলকপি সংগ্রহ ও করণীয়২০২১-০২-১৫T২২:৩৩:৪৫+০৬:০০

ওলকপি চাষে অন্যান্য পরিচর্যা

সেচ ও আগাছা ব্যবস্থাপনা ওলকপি চাষে প্রচুর পানি লাগে। সারির মাঝের মাটিতে উপরি সার দিয়ে সেই মাটি আলগা করে গাছের গোড়ায় টেনে দিলে নালা তৈরি হবে। সেই নালায় সেচ দিতে হবে। গাছ বড় না হওয়া পর্যন্ত জমির আগাছা পরিষ্কার করে রাখতে হবে। মালচিংঃ চারা গজানোর পর চারা যাতে ভালোভাবে মাটির ওপরে পাতা ছড়াতে পারে সে [...]

ওলকপি চাষে অন্যান্য পরিচর্যা২০২১-০২-১৫T২২:৩৩:৫৭+০৬:০০

ওলকপি চাষে সার ব্যবস্থাপনা

ওলকপির ভাল ফলন পাওয়ার জন্য প্রতি শতাংশ (ডেসিমাল) জমির জন্য নিম্নোক্ত হারে সার প্রয়োগ করতে হবেঃ  সারের নাম সারের পরিমাণ মন্তব্য পচা গোবর/কম্পোস্ট ৬০-৮০ কেজি অধিকতর তথ্যের জন্য এখানে ক্লিক করুন। এলাকা বা মৃত্তিকাভেদে সারের পরিমাণে কম-বেশী হতে পারে। টিএসপি ০.৮-১ কেজি ইউরিয়া ০.৪-০.৬ কেজি এমওপি/পটাশ ০.৪-০.৫ কেজি জিপসাম ০.৭ কেজি দস্তা সার ০.০২ কেজি বোরণ [...]

ওলকপি চাষে সার ব্যবস্থাপনা২০২১-০২-১৫T২১:৫২:২৯+০৬:০০

ওলকপির বপন/রোপণ পদ্ধতি

উপযুক্ত জমি ও মাটি ওলের জন্য পানি দাঁড়ায় না এমন উঁচু জমি দরকার। ছায়া থাকলে ভালো হয় না। বেলে-দো-আঁশ মাটিতে ওল ভালো বাড়ে।  বীজ বোনার সময়ঃ ভাদ্র থেকে কার্তিক। বীজের পরিমাণঃ প্রতি শতকে ৩.২ গ্রাম, একর প্রতি ৩২৫ গ্রাম, হেক্টর প্রতি ৮০০ গ্রাম বীজ লাগে। চারা তৈরিঃ লাভজনকভাবে ওল উৎপাদন করতে হলে বিশ্বস্ত জায়গা বা [...]

ওলকপির বপন/রোপণ পদ্ধতি২০২১-০২-১৫T২২:৩৪:১১+০৬:০০

ওলকপির জাত পরিচিতি

জাতঃ এ দেশে বিভিন্ন জাতের ওল পাওয়া যায়। এর মধ্যে ‘মাদ্রাজি’জাত সর্বোৎকৃষ্ট। হালকা সবুজ রঙের জাত আর্লি হোয়াইট ভিয়েনা এবং বেগুনী রঙের জাত আর্লি পার্পল ভিয়েনা প্রসিদ্ধ। এছাড়াও অনুপম, বাম্পার হারভেষ্ট এফ১, আর্লি বল এফ১, ক্রান্তি এফ১, নিমাজিন এফ-১ ইত্যাদি জাত চাষ করা হয়ে থাকে। যথাযথ গবেষণার অভাবে এখনো উচ্চফলনশীল কোনো জাত এ দেশে উদ্ভাবিত হয়নি।  [...]

ওলকপির জাত পরিচিতি২০২১-০২-১৫T১৯:৫৩:১৪+০৬:০০
Go to Top