ফুলকপি < উৎপাদন পদ্ধতি

ফুলকপির সংগ্রহ ও করণীয়

রোপণের ৪৫-৫৫ দিন পরে পুষ্পমঞ্জরী আসে এবং ৬০-৭০ দিন পর সংগ্রহ করা যায। ফুলকপির প্রতি বিঘার গড় ফলন ৮৫-১০০ মণ। তথ্যসুত্রঃ কৃষি প্রযুক্তি হাত বই এবং কৃষি প্রযুক্তি ভান্ডার, বারি, গাজীপুর

ফুলকপির সংগ্রহ ও করণীয়২০২১-০২-১৫T২০:১১:০৯+০৬:০০

ফুলকপি চাষে অন্যান্য পরিচর্যা

ফুলকপির চারা রোপনের পরবর্তী পরিচর্যাঃ ১। রোপনের পর প্রথম ৪-৫ দিন একদিন পরপরই সেচ দিতে হবে। পরবর্তীতে ৮-১০ দিন অন্তর বা প্রয়োজন অনুযায়ী সেচ দিলেই চলবে। ২। সেচ পরবর্তী জমিতে “জো” আসলে ফুলকপির স্বাভাবিক বৃদ্ধির জন্য মাটি চটা ভেঙ্গে দিতে হবে এবং জমির আগাছা মুক্ত রাখতে হবে। ৩। সারের উপরি প্রয়োগ যথা সময়ে করতে হবে। [...]

ফুলকপি চাষে অন্যান্য পরিচর্যা২০২১-০২-১৫T২০:১১:২৪+০৬:০০

ফুলকপি চাষে সার ব্যবস্থাপনা

ফুলকপির ভাল ফলন পাওয়ার জন্য প্রতি শতাংশ (ডেসিমাল) মাঝারি উর্বর জমির জন্য নিম্নোক্ত হারে সার প্রয়োগ করতে হবেঃ সারের নাম সারের পরিমাণ মন্তব্য পচা গোবর/কম্পোস্ট ৬০-৮০ কেজি অধিকতর তথ্যের জন্য এখানে ক্লিক করুন। এলাকা ও মৃত্তিকাভেদে সারের মাত্রায় পরিবর্তন হতে পারে।         ইউরিয়া ১.০-১.২ কেজি টিএসপি ০.৬১-০.৮১ কেজি এমওপি/পটাশ ০.৮১ - ১ কেজি জিপসাম ০০ দস্তা [...]

ফুলকপি চাষে সার ব্যবস্থাপনা২০২১-০২-১৫T২০:৪৯:৩৯+০৬:০০

ফুলকপির বপন/রোপন পদ্ধতি

বপন সময়ঃ  ভাদ্র-আশ্বিন (মধ্য-আগস্ট থেকে মধ্য অক্টোবর) মাসে বীজ বপন করতে হয় এবং কার্তিক থেকে অগ্রহায়ন পর্যন্ত (মধ্য নভেম্বর থেকে ডিসেম্বর) জমিতে চারা রোপণ করা যায়। বীজ হার ও চারা উৎপাদনঃ চারা তৈরীর জন্য ৩.৩০ x ১০ ফুট বীজতলা তৈরি করতে হবে। প্রতি বিঘা জমিতে ফুলকপি চাষের জন্য ৪০-৪৫ গ্রাম বীজ প্রয়োজন। ফুলকপি চাষের জন্য ৩০ দিন [...]

ফুলকপির বপন/রোপন পদ্ধতি২০২১-০২-১৫T২০:৪৯:৫৯+০৬:০০

ফুলকপির জাত পরিচিতি

জাতের নাম ছবিতে ক্লিক করুন গড় জীবনকাল (দিন) গড় ফলন (মণ/বিঘা) বারি ফুলকপি-১ (রুপা) ৯৫-১০৫ কপিঃ ৮৫-৯৫, বীজঃ ১.৫-১.৮ (প্রতিটি ফুলকপির ওজন ৮৫০-১০০০ গ্রাম।) ফুলকপি চারিদিকে পাতা দ্বারা আংশিক ঢাকা থাকে। এদেশে জলবায়ুতে বীজ উৎপাদন করা যায়। সারাদেশে চাষ উপযোগী উচ্চফলনশীল জাত বারি ফুলকপি-২ রোপণের ৪৫-৫৫ দিন পরে পুষ্পমঞ্জরী আসে এবং ৬০-৭০ দিন পর সংগ্রহ করা যায। কপিঃ [...]

ফুলকপির জাত পরিচিতি২০২১-০২-১৫T২০:৫০:১৯+০৬:০০
Go to Top