আলু সংগ্রহ ও কৃষক পর্যায়ে আলু সংরক্ষণঃ

আলু সংরক্ষণের জন্য হিমাগার সবচেয়ে উপযুক্ত স্থান। কিন্তু হিমাগারে সংরক্ষণ ব্যবস্থা অপ্রতুল হওয়ায়্ আলু সংগ্রহের মৌসুমে প্রচুর পরিমাণ আলু স্থানীয়ভাবে বাড়িতে সংরক্ষণ করতে হয়। সে কারণে সংরক্ষণকালীন সময়ে কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের প্রতি দৃষ্টি রাখতে হবে। এতে আলু ৫-৬ মাস ভালভাবে ঘরে সংরক্ষণ করা যাবে এবং ৩-৪ মাস পর বিক্রি করে লাভবান হওয়া যায়। আলু ঘরে সংরক্ষণ করতে হলে নিম্নলিখিত বিষয় সমূহের প্রতি সতর্ক দৃষ্টি রাখতে হবে।

  • মেঘলা বা বৃষ্টির দিনে আলু উত্তোলন করা ঠিক হবে না। আলু সকালের দিকে উত্তোলন করতে হবে।
  • আলু সম্পূর্ণরুপে পরিপক্ক হলে তুলতে হবে। আলু উত্তোলনের ৭-১০ দিন আগে আলু গাছের গোড়া কেটে ফেলে ‘হাম পুলিং’ করতে হবে।
  • আলু তোলার সময় লক্ষ্য রাখতে হবে যেন কোদাল বা লাঙ্গলের আঘাতে আলু কেটে না যায়।
  • আলু তোলা শেষ হলে তা পরিবহনের জন্য চটের বস্তা ব্যবহার করাই ভাল।
  • সাধারণত আলু বস্তায় ভরার সময় প্লাস্টিকের ঝুড়ি বা গামলা ব্যবহার করা উত্তম। যদি বাশের ঝুড়ি ব্যবহার করতে হয় তা হলে ঝুড়ির মাঝখানে চট বা ছালা বিছিয়ে সেলাই করে নিতে হবে।
  • আলু সংগ্রহ শেষে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব বাড়িতে নিয়ে যেতে হবে। যদি কোন কারণে আলু ক্ষেতে রাখতে হয় তা হলে ছায়াযুক্ত জায়গায় বিছিয়ে পাতলা কাপড়/খড় দিয়ে ঢেকে রাখতে হবে।
  • বাড়িতে এনে আলু পরিষ্কার, শুকনো ছায়াযুক্ত জায়গায় রাখতে হবে। আলু ঢালার সময় সতর্ক থাকতে হবে, বেশি জোরে বেশি উঁচু থেকে আলু ঢালা যাবে না।
  • আলু সংগ্রহ করা সম্পূর্ণরুপে শেষ হলে ১-৭ দিন পরিষ্কার ঠান্ডা জায়গায় আলু বিছিয়ে রেখে পাতলা কাপড় দিয়ে ঢেকে রেখে কিউরিং করতে হবে। এতে করে আলুর গায়ের ক্ষত সেরে যাবে ও পোকার আক্রমণ থেকে সংগৃহীত আলু রক্ষা পাবে। এভাবে আলু রেকে দেওয়ার পদ্ধতিকে আলু কিউরিং বলে।
  • আলু সংরক্ষণ করার আগে কাটা, সবুজ, রোগাক্রান্ত আলু বাছাই করতে হবে।
  • সংগ্রহের ৭-১০ দিনের মধ্যে আলু পরিষ্কার করে আকর অনুযায়ী (বড়, মাঝারী ও ছোট গ্রেডিং করে ফেলতে হবে।
  • বাছাই করা আলু ঠান্ডা ও বাতাসযুক্ত ঘরে সংরক্ষণ করতে হবে।
  • সংরক্ষিত আলু ৪-৬ ইঞ্চি উঁচু করে মেঝেতে বিছিয়ে রাখা দরকার। এছাড়া বাশের তৈরি মাচায়, ঘরের তাকে বা চৌকির নিচেও আলু বিছিয়ে রাখা যেতে পারে।
  • সংরক্ষিত আলু ১০-১৫ দিন পর নিযমিত বাছাই করতে হবে। রোগাক্রান্ত, পোকা লাগা ও পচা আলু দেখা মাত্র ফেলে দিতে হবে।
  • আলুতে সুতলি পোকা দেখা দিলে সঙ্গে সঙ্গে বাছাই করে অনেক দূরে গর্ত করে পুতেঁ ফেলতে হবে।

·

আলু প্রক্রিয়াজাতকরণঃ

মৌসুমে আলুর দাম কম থাকে, সে জন্য কৃষক খাওয়ার আলু ও বিক্রির আলু ঘরে সংরক্ষণ করে থাকে। এ সময় যদি বেশ কিছু পরিমাণ আলু প্রক্রিয়াজাত করে রাখা যায় তাহলে পরে সে আলু গ্রামের গৃহবধু ও মেয়েরা বিক্রি করে লাভবান হতে পারে।

তথ্যসূত্রঃ কৃষি প্রযুক্তি হাত বই (৬ষ্ঠ সংস্করণ), বারি, গাজীপুর

Print Friendly, PDF & Email

সর্বশেষ আপডেট : ফেব্রুয়ারী ১৭, ২০২১