চিচিঙ্গার ভাল ফলন পাওয়ার জন্য প্রতি শতাংশ (ডেসিমাল) জমির জন্য নিম্নোক্ত হারে সার প্রয়োগ করতে হবেঃ

সারের নাম সারের পরিমাণ মন্তব্য
পচা গোবর/কম্পোস্ট ৮০ কেজি অধিকতর তথ্যের জন্য এখানে ক্লিক করুন। এলাকা বা মৃত্তিকাভেদে সারের পরিমাণে কম-বেশী হতে পারে।
ইউরিয়া ০.৭ কেজি
টিএসপি ০.৭ কেজি
এমওপি/পটাশ ০.৬ কেজি
জিপসাম ০.৪ কেজি
দস্তা ০.০৫ কেজি
বোরণ ০.০৪ কেজি
ম্যাগনেসিয়াম অক্সাইড ০.০৫ কেজি

 

সার প্রয়োগ পদ্ধতিঃ

৪০ কেজি গোবর, অর্ধেক টিএসপি ও ২০০ গ্রাম পটাশ, সমুদয় জিপসাম, দস্তা, বোরণ জমি তৈরির সময় মাটিতে প্রয়োগ করতে হবে। অবশিষ্ট গোবর (মাদা প্রতি ২ কেজি), টিএসপি (মাদা প্রতি ১৮ গ্রাম), ২০০ গ্রাম পটাশ (মাদা প্রতি ১০ গ্রাম), সমুদয় ম্যাগনেসিয়াম (মাদা প্রতি ২.৫ গ্রাম) চারা রোপণের ৭-১০ দিন পূর্বে প্রয়োগ করতে হবেচারা রোপণের ১০-১৫ দিন পর ১ম বার, ৩০-৩৫ দিন পর ২য় বার, ৫০-৫৫ দিন পর ৩য় বার ২০০ গ্রাম করে ইউরিয়া (মাদা প্রতি ১০ গ্রাম) প্রয়োগ করতে হবে। চারা রোপণের ৭০-৭৫ দিন পর ১০০ গ্রাম ইউরিয়া (মাদা প্রতি ৫ গ্রাম) প্রয়োগ করতে হবে

মাদায় চারা রোপণের পূর্বে সার দেয়ার পর পানি দিয়ে মাদার মাটি ভালভাবে ভিজিয়ে দিতে হবে। অতঃপর মাটিতে জো এলে ৭-১০ দিন পর চারা রোপণ করতে হবে।

তথ্য সূত্রঃ কৃষি প্রযুক্তি ভান্ডার, বারি, গাজীপুর

Print Friendly, PDF & Email

সর্বশেষ আপডেট : ফেব্রুয়ারী ১৫, ২০২১