বীজ বপনের সময়ঃ রবি (শীতকালে): আশ্বিন-কার্তিক (অক্টোবর-নভেম্বর) এবং খরিফ (গ্রীষ্মকালে): বৈশাখ-আষাঢ় (এপ্রিল-জুন)

বপণের পদ্ধতিঃ বেডে বীজ ছিটিয়ে চারা তৈরী করে নিতে হয়।

বীজ হারঃ এক বিঘার জন্য ২৬.৬৭ গ্রাম বা এক হেক্টরের জন্য ২০০ গ্রাম অথবা (১০ ফুট x ৩.২৫ ফুট আকারের বেডের জন্য =৫০ গ্রাম)

চারার রোপন সময়ঃ ৩০-৩৫ দিনের চারা মধ্য কার্তিক-অগ্রহায়ন (নভেম্বর হতে মধ্য ডিসেম্বর) এবং জৈষ্ঠ্য থেকে ভাদ্র (জুন থেকে সেপ্টে)

চারা উৎপাদন প্রযুক্তি :  সবল চারা উৎপাদনের জন্য প্রথমে ৫০ গ্রাম সুস্থ বীজ ঘন করে প্রতিটি (সোয়া ৩ ফুট চওড়া ও ১০ ফুট লম্বা) বীজতলায় বুনতে হয়। এই হিসেবে প্রতি হেক্টরের জন্য ২০০ গ্রাম বীজ বুনতে (গজানোর হার শতকরা ৮০ ভাগ) ৪টি বীজতলার প্রয়োজন। গজানোর ৮-১০ দিন পর চারা দ্বিতীয় বীজতলায় ৪×৪ সেমি দূরত্বে স্থানান্তর করতে হয়। প্রতি হেক্টর জমিতে টমেটো চাষের জন্য এইরুপ ২২টি বীজতলার প্রয়োজন হয়। বীজতলায় ৪০-৬০ মেস (প্রতি ইঞ্চিতে ৪০-৬০টি ছিদ্রযুক্ত) নাইলন নেট দিয়ে ঢেকে চারা উৎপাদন করলে চারা অবস্থায়ই সাদা মাছি পোকার দ্বারা পাতা কোঁকড়ানো ভাইরাস রোগ ছড়ানোর হাত থেকে নিস্তার পাওয়া যায়। ফলে সুস্থ সবল ও ভাইরাস মুক্ত চারা রোপণ করে ভাল ফল পাওয়া যায়। অতিরিক্ত বৃষ্টি ও রোদের হাত থেকে রক্ষা করতে প্রয়োজনে পলিথিন ও চাটাই এর আচ্ছাদন ব্যবহার করতে হবে।  ভিটাভেক্স/প্রোভেক্স-২০০ নামক ছত্রাকনাশক প্রতি কেজি বীজে ২.৫-৩.০ গ্রাম হারে মিশিয়ে বীজ শোধন করতে হবে

চারা রোপণ পদ্ধতিঃ

মাটির প্রকৃতি ও স্থানভেদে  ৪ ফুট চওড়া ও ৮ ইঞ্চি থেকে ১ ফুট উঁচু মিড়ি বেড তৈরী করতে হবে যাতে পানি সেচ ও নিষ্কাশনের সুবিধা হয়। দু’টি মিড়ির মাঝে ২০ ইঞ্চি চওড়া নালা রাখতে হবে। চারার বয়স ৩০-৩৫ দিন অথবা ৪-৬ পাতা বিশিষ্ট হলে জমিতে রোপণ করতে হবে। সোয়া তিন ফুট চওড়া বেডে দুই সারি করে চারা লাগাতে হবে। এ ক্ষেত্রে সারি থেকে সারির দূরত্ব ২ ফুট এবং সারির উপরে চারা থেকে চারা ১৫ ইঞ্চি দূরত্বে লাগাতে হবে। বীজতলা থেকে চারা যত্ন সহকারে তুলতে হবে যেন চারার শিকড় ক্ষতিগ্রস্ত না হয়। চারা তোলার আগে বীজতলার মাটি ভিজিয়ে নিতে হবে। বিকেলের পড়ন্ত রোদে চারা রোপণ করাই উত্তম এবং লাগানোর পর গোড়ায় হালকা সেচ প্রদান করতে হবে

তথ্যসূত্রঃ কৃষি প্রযুক্তি হাত বই (৬ষ্ঠ সংস্করণ), বারি, গাজীপুর

Print Friendly, PDF & Email

সর্বশেষ আপডেট : ফেব্রুয়ারী ১৭, ২০২১