লাগানোর সময়ঃ
বাঁধাকপি শীতকালেই ভাল হয়। শীত মৌসুমে আগাম ও নাবী করেও চাষ করা যায়। তবে সমপ্রতি গ্রীষ্ম ও বর্ষকালেও বাঁধাকপি উৎপাদিত হচ্ছে। মৌসুমভেদে বাঁধাকপির বীজ বপনের সময় নিচে দেয়া হল-

সময়  বীজ বপনের সময়  চারা  রোপণের সময় 
আগাম শ্রাবণ-ভাদ্র  ভাদ্র-আশ্বিন
মধ্যম    আশ্বিন-কার্তিক   কার্তিক-আগ্রহায়ণ
নাবি    অগ্রহায়ণ-মধ্য পৌষ    পৌষ-মধ্য মাঘ

 

বীজ হারঃ

জাত ভেদে প্রতি শতকে ২-৩ গ্রাম অথবা বিঘা প্রতি ৬৫-১০০ গ্রাম।

চারা উৎপাদন পদ্ধতি

বাঁধা কপির চারা বীজতলায় উৎপাদন করে জমিতে লাগানো হয়। বীজতলার আকার ১ মিটার পাশে ও লম্বায় ৩ মিটার হওয়া উচিত। সমপরিমাণ বালি, মাটি ও জৈবসার মিশিয়ে ঝুরাঝুরা করে বীজতলা তৈরি করতে হয়। দ্বিতীয় বীজতলায় চারা রোপণের আগে ৭/৮ দিন পূর্বে প্রতি বীজতলায় ১০০ গ্রাম ইউরিয়া,১৫০ গ্রাম টিএসপি ও ১০০ গ্রাম এমওপি সার ভালভাবে মিশিয়ে দিতে হবে। পরে চারা ঠিকমত না বাড়লে প্রতি বীজতলায় প্রায় ১০০ গ্রাম পরিমাণ ইউরিয়া সার ছিটিয়ে দেয়া ভাল।

জমি তৈরি ও চারা রোপণ

গভীর ভাবে ৪-৫টি চাষ দিয়ে মাটি ঝুরঝুরে করে তৈরি করতে হবে। বীজ বপনের ৩০-৩৫ দিন পর বা ৫/৬টি পাতা বিশিষ্ট ৫-৬ ইঞ্চি লম্বা  চারা সাধারণতঃ বিকেল বেলা জমিতে রোপণ করতে হয়। তবে সুস্থ ও সবল হলে চারা এক-দেড় মাস বয়সের চারা রোপণ করা যায়। রোপণের জন্য সারি থেকে সারির দুরত্ব ২ ফুট  এবং প্রতি সারিতে চারা থেকে চারার দূরত্ব ১.৫ ফুট দিলে ভাল হয়। এ হিসেবে প্রতি শতকে ১৫০ টির মত চারার প্রয়োজন হয়। আঙ্গিনায় ১১ হাত লম্বা একটা বেডের জন্য ২০-২২ টি চারার প্রয়োজন হয়। বেডে দুই সারিতে চারাগুলো লাগাতে হবে। 

তথ্যসূত্রঃ কৃষি প্রযুক্তি হাত বই (৬ষ্ঠ সংস্করণ), বারি, গাজীপুর

Print Friendly, PDF & Email

সর্বশেষ আপডেট : ফেব্রুয়ারী ১৫, ২০২১