দেশে ৫০ টিরও বেশি স্থানীয় শিমের জাত আছেএগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল বাইনতারাহাতিকান, চ্যাপ্টাশিম, ধলা শিম, পুটিশিম, ঘৃত কাঞ্চন, সীতাকুন্ডু, নলডক ইত্যাদি। শিমের আধুনিক উচ্চ ফলনশীল জাতগুলো হলো – বারি শিম-১,বারি শিম-২, বারি শিম-৩ (গ্রীষ্মকালীন জাত), বারি শিম-৪, বারি শিম-৫, বারি শিম ৬,  বিইউ শিম৩, ইপসা শিম ১, ইপসা শিম ২, একস্ট্রা আর্লি, আইরেট ইত্যাদি

জাতের নাম ক্লিক করুন গড় জীবনকাল (দিন) গড় ফলন (মণ/বিঘা)
বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট (বারি) কর্তৃক উদ্ভাবিত জাতসমূহ
বারি শিম ১ bari 1 ২০০-২২০
(আষাঢ় থেকে ভাদ্র মাসে বীজ বপন করতে হয়)
২.৭-২.৯
(প্রতিটি শিমের ওজন ১০-১১ গ্রাম, গাছ প্রতি ৪৫০-৫০০ টি শিম ধরে)
মাঝারি আগাম জাত। শিমের বর্ণ সবুজ। শিমে ৪-৫ টি বীজ হয়। শিম পাকার পূর্ব পর্যন্ত নরম থাকে এবং খেতে সুস্বাদু। জাতটি ভাইরাসজনিত রোগ প্রতিরোধী। দেশের অধিকাংশ অঞ্চলে চাষ করা যায়।
বারি শিম ২ bari 2 ১৯০-২১০

 

১.৬-১.৯
(প্রতিটি শিমের ওজন ৭-৮ গ্রাম, গাছ প্রতি ৩৮০-৪০০ টি শিম ধরে)
শিমে ৪-৫ টি বীজ হয়। শিম পাকার পূর্ব পর্যন্ত নরম থাকে। এক মৌসুমে ১৫-১৬ বার শিম সংগ্রহ করা যায়। দেশের সব অঞ্চলে চাষ করা যায়।
বারি শিম ৩
(গ্রীষ্মকালীন)
bari 3  ১৫০-১৮০
(গ্রীষ্মকালে = মার্চ এবং শীতকালে = জুন)
গ্রীষ্মকালে = ১.২-১.৩ এবং শীতকালে = ২.০-২.৪
(প্রতিটি শিমের ওজন ৬-৭ গ্রাম, গাছ প্রতি ৪৫০-৫০০ টি শিম ধরে)
তাপ সংবেদনশীল ও দিবস নিরপেক্ষ জাত। ফুল সাদা এবং শিমের বর্ণ সবুজ। শিমে ৪-৫ টি বীজ হয়। শিম পাকার পূর্ব পর্যন্ত নরম থাকে এবং খেতে সুস্বাদু। মোট ১২-১৪ বার শিম সংগ্রহ করা যায়। দেশের সব অঞ্চলে চাষ করা যায়।
বারি শিম ৪ bari 4  –  ২.২-২.৪
শিম কা্স্তে আকৃতির। ফল ছিদ্রকারী পোকার আক্রমণ সহনশীল। দেশের অধিকাংশ অঞ্চলে চাষ করা যায়।
বারি শিম ৫ bari 5 ৭৫-৮৫
(লাগানোর ৩৫-৪০ দিনের মধ্যে ফুল আসে, ৭৫-৮০ দিন পর্যন্ত সংগ্রহ করা যায়)।  
১.৬-১.৯
এ জাতের গাছ খাটো আকৃতির, তাই মাচা ছাড়াই শিম পাওয়া যায়। দেশের অধিকাংশ অঞ্চলে চাষ করা যায়। রোপণ দূরত্ব ২ ফুট × ২০ ইঞ্চি। আশ্বিন মাসে বীজ বপন করে কার্তিক মাসে রোপণ করলে ফলন ভাল হয়
বারি শিম ৬ bari 6 ২২০-২৫০ ২.২৭-২.৬৭
(গাছ প্রতি ২৫০-৩০০ টি শিম ধরে)
এজাতের শিম লম্বা, নলডক ধরনের। পডগুলো খুব লম্বা ও কাস্তে আকৃতির, নরম, মাংসল ও আঁশবিহীন। বীজ সামান্য চেপ্টা, কুচকানো কালচে বাদামী। দেশের সকল অঞ্চলে চাষ করা যায়।
বারি শিম ৭
(গ্রীষ্মকালীন)
bari 7  – ১.৬-১.৭
(গাছ প্রতি ৬০-৭০ টি শিম ধরে)
উচ্চ তাপমাত্রায় ফুল ও ফল ধারনে সক্ষম। সবুজ, নরম, মাংসল ও কম আঁশযুক্ত। কিনারাসহ পুরো ফলের ত্বক সবুজ বর্ণ বিশিষ্ট।দেশের সকল অঞ্চলে চাষ করা যায়।
অন্যান্য প্রতিষ্ঠান কর্তৃক উদ্ভাবিত জাতসমূহ
বিইউ শিম ৯৩০ কেজি থেকে ১.০ টন
সারা বছর চাষ করা যায়গ্রীষ্ম মৌসুমেও চাষের উপযোগীশিমের রঙ বেগুনি। প্রতিটি শিমে গড়েটি বীজ হয়
ইপসা শিম ৬৭০ কেজি থেকে ১.৩৩ টন
সারা বছর চাষ করা যায়গ্রীষ্ম মৌসুমেও চাষের উপযোগীশিমের রঙ বেগুনিপ্রতিটি শিমে গড়েটি বীজ হয়
ইপসা শিম ৯৩০ কেজি থেকে ১.০ টন
সারা বছর চাষ করা যায়গ্রীষ্ম মৌসুমেও চাষের উপযোগীশিমের রঙ সাদাটেসবুজপ্রতিটি শিমে গড়েটি বীজ হয়


তথ্যসূত্রঃ কৃষি প্রযুক্তি হাত বই, বারি, গাজীপুর এবং কৃষি তথ্য সার্ভিস, ঢাকা

Print Friendly, PDF & Email

সর্বশেষ আপডেট : ফেব্রুয়ারী ১৫, ২০২১