ডাল ছাঁটাইকরণঃ

ছোট অবস্থায় চারা/কলম লাগানোর পর ছোট ছোট শাখা কেটে দিলে কান্ড লম্বা হয়। বড় গাছের মরা ডাল, ভিতরের ছোট ছোট শাখা, পূর্ববর্তী বছরের কাঁঠালের বোঁটার অবশিষ্ট অংশ কেটে দিলে ফলন বেশী হয়।

পানি সেচ ও নিষ্কাশনঃ

ডিসেম্বর থেকে মে মাস পর্যন্ত শুকনো মৌসুমে ১৫ দিন পর পর বেসিন পদ্ধতিতে পানি সেচ দিলে কচি ফল ঝরা কমে, ফলন ও ফলের গুনগতমান বৃদ্ধি পায়। কাঁঠাল গাছ জলাবদ্ধতার প্রতি অত্যন্ত সংবেদনশীল বিধায় কোন অবস্থায় পানি জমে থাকা চলবে না।

ফল ব্যাগিংঃ

গাছে ফল টিকে যাবার পর নিচের দিকে খোলা পলিথিনের ব্যাগ দিয়ে ঢেকে দিলে ফল ছিদ্রকারী পোকা (টাটা পোকা), ফলের নরম পচা রোগ থেকে রক্ষা পাওয়া যায়। ফলের রং ও আকার ভাল হয়।

সূত্রঃ কৃষি প্রযুক্তি হাত বই (৬ষ্ঠ সংস্করণ), বারি, গাজীপুর

Print Friendly, PDF & Email

সর্বশেষ আপডেট : ফেব্রুয়ারী ১৮, ২০২১