সমস্যারর লক্ষণ:

দীর্ঘ খরা হলে বা শুষ্ক ও গরম হাওয়ার ফলে শারীরবৃত্তীয় কারণে অথবা মাটি অধিক শক্ত থাকলে অথবা হঠাৎ সেচ দেয়া বা অতিরিক্ত নাইট্রোজেন সার বা হরমোন প্রয়োগের কারণে পেঁয়াজের কন্দ ফেটে যেতে পারে।

[slider width=”100%” height=”100%” class=”” id=””]
[slide type=”image” link=”” linktarget=”_self” lightbox=”yes”]http://agrivisionbd.com/wp-content/uploads/2015/12/onion-spliting-1.jpg[/slide]
[/slider]

সমস্যার সমন্বিত ব্যবস্থাপনাঃ

সমস্যা হওয়ার আগে করণীয়ঃ

১. খরা মৌসুমে নিয়মিত পরিমিত সেচ দেওয়া
২. পর্যাপ্ত জৈব সার প্রয়োগ করা ।

৩. রোপণের পূর্বে উত্তমরুপে চাষ দিয়ে মাটি ঝুরঝুরে করা;

৪. আক্রান্ত গাছ থেকে বীজ সংগ্রহ করবেন না;

৫. অতি ঘন করে পেঁয়াজ চাষ না করা।

সমস্যা হওয়ার পর করণীয়ঃ

# আক্রান্ত পাতা ও বীজকান্ড ছাটাই করে ধ্বংস করা।
# ইউরিয়া সার প্রয়োগ বন্ধ করা

তথ্যসূত্রঃ ১। বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট (বারি) এবং ২। Farmer’s Window

Print Friendly, PDF & Email

সর্বশেষ আপডেট : ফেব্রুয়ারী ১৫, ২০২১