রোগের লক্ষণঃ

[slider width=”100%” height=”60%” class=”” id=””]
[slide type=”image” link=”” linktarget=”_self” lightbox=”yes”]http://agrivisionbd.com/wp-content/uploads/2015/10/black-rot-2.jpeg[/slide]
[/slider]

আক্রান্ত পাতায় হালকা বাদামী থেকে ধুসর ছাই রংগের দাগ দেখা যায়। ধীরে ধীরে দাগ বড় হয় ও মধ্য শিরার দিকে অগ্রসর হলে অনেকটা ইংরেজি V অক্ষরের মত আকার ধারণ করে। দাগের কিনারা হলদে থাকে ।

রোগ হওয়ার পূর্বে করণীয়ঃ

১. রোগমুক্ত বীজ বা চারা ব্যবহার করা ;
২. বপনের পূর্বে ৫০ ডিগ্রি সে. তাপমাত্রার গরম পানিতে ৩০ মিনিট ভিজিয়ে বীজ শোধন করা;
৩. একই জমিতে বার বার বাঙ্গি বা কুমড়া জাতীয় ফসল চাষ করা যাবে না;

৪. লাল মাটি বা অম্লীয় মাটির ক্ষেত্রে শতাংশ প্রতি চার কেজি হারে ডলোচুন প্রয়োগ করতে হবে (প্রতি তিন বছরে একবার) ।

রোগ হওয়ার পর করণীয়ঃ

১. গাছের আক্রান্ত অংশ সংগ্রহ করে নষ্ট করা;
২. রিডোমিল গোল্ড ২ গ্রাম/প্রতি লিটার পানি মিশিয়ে স্প্রে করা ;

৩. ফসল সংগ্রহের পর অবশিষ্ট অংশ ধ্বংস করতে হবে।

তথ্যসূত্রঃ ১। বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট, গাজীপুর এবং

২। কৃষকের জানালা  এবং www.google.bd.com (ছবি)

Print Friendly, PDF & Email

সর্বশেষ আপডেট : ফেব্রুয়ারী ১৫, ২০২১