রোগ আক্রমণের লক্ষণ:

কচি পাতা হঠাৎ করে নেতিয়ে পড়ে । পরবর্তীতে গাছ মারা যায়।

[slider width=”100%” height=”100%” class=”” id=””]
[slide type=”image” link=”” linktarget=”_self” lightbox=”yes”]http://agrivisionbd.com/wp-content/uploads/2015/12/wilting.jpeg[/slide]
[slide type=”image” link=”” linktarget=”_self” lightbox=”yes”]http://agrivisionbd.com/wp-content/uploads/2015/12/wilting-2.jpeg[/slide]
[/slider]

আক্রমণের আগে করণীয়ঃ

১ আক্রান্ত জমিতে কয়েকবার দানা জাতীয় ফসল চাষ করে আবার শিম চাষ করুন

২. ফসল সংগ্রহের পর পুরাতন গাছ ও আবর্জনা আগুনে পুড়িয়ে দিন।

৩. জমি তৈরি করার সময় জমি গভীরভাবে চাষ দিন

৪. বপনের পূর্বে বীজ শোধন করা (ভিটাভেক্স-২.৫ গ্রাম বা ব্যাভিষ্টিন- ২ গ্রাম / কেজি বীজ)ট্রাইকোডারমা ভিড়িডি (৩-৪ গ্রাম/ কেজি বীজ) দ্বারা শোধন করা ।

৫. চারা গজানোর পর অতিরিক্ত সেচ না দেওয়া ।

আক্রমণ হলে করণীয়ঃ

  • সম্ভব হলে আক্রান্ত গাছ সংগ্রহ করে ধ্বংশ করা বা পুড়ে ফেলা।
  • মাদার মাটিতে ট্রাইকোডারমা ভিড়িডি ৩০ গ্রাম ৫০০ গ্রাম গোবরের সাথে মিশিয়ে ব্যবহার করা ।

তথ্যসূত্রঃ বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট (বারি) এবং Farmers’ window

Print Friendly, PDF & Email

সর্বশেষ আপডেট : ফেব্রুয়ারী ১৫, ২০২১